তুরস্কে ভূমিকম্পে প্রথম সাহায্যকারী দেশের নাম জানালেন এরদোগান

গত ৬ ফেব্রুয়ারি তুরস্কে ভয়াবহ ভূমিকম্পে নিহত হয়েছেন প্রায় ৫০ হাজার মানুষ। দেশটির ইতিহাসে এই মহাবিপর্যয়ের সময় সবার আগে কোন কোন দেশ এগিয়ে এসেছেন দেশগুলোর নাম প্রকাশ করলেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান। খবর ইয়েনি শাফাকের।

এরদোগান বলেছেন- তুরস্কের সহায়তায় সর্বপ্রথম এগিয়ে এসেছে ‘তুর্কিক ওয়ার্ল্ড’ অর্থাৎ আজারবাইজান, তুর্কমেনিস্তান, উজবেকিস্তান, কাজাখস্তান ও কিরগিজস্তান।

বৃহস্পতিবার দেশটির রাজধানী আঙ্কারায় অনুষ্ঠিত তুরস্কের প্রেসিডেন্টের বাসভবনে ‘অরগানাইজেশন অব তুর্কিক স্টেটস’-এর সম্মেলনের উদ্বোধনী বক্তব্যে এ কথা বলেন এরদোগান।

তিনি বলেন, আমরা আন্তর্জাতিক সহায়তা চাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে এ দেশগুলো (আজারবাইজান, তুর্কমেনিস্তান, উজবেকিস্তান, কাজাখস্তান, কিরগিজস্তান) হাত বাড়িয়ে দিয়েছে। তুর্কি জাতি এ সহায়তার কথা কখনো ভুলবে না।

এরদোগান আরও বলেন, দুর্ঘটনার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই দেশগুলো উদ্ধার অভিযান পরিচালনার জন্য দলে দলে উদ্ধারকর্মী পাঠিয়েছে। এজন্য এ দেশগুলোকে ধন্যবাদ জানান এরদোগান।

প্রসঙ্গত, গত ৬ ফেব্রুয়ারি ৭ দশমিক ৮ এবং ৭ দশমিক ৭ মাত্রার ভূমিকম্পে লণ্ডভণ্ড হয়ে যায় তুরস্কের প্রায় ১১টি প্রদেশ। এতে ক্ষতিগ্রস্ত হয় প্রায় এক কোটি ৩৫ লাখ মানুষ।

‘অরগানাইজেশন অব তুর্কিক স্টেটস’-এর এবারের সম্মেলনের মূল থিম ‘জরুরি দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা এবং মানবিক সহায়তা’। এ বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবেন দেশগুলোর নেতারা।

তুরস্ক, আজারবাইজান, উজবেকিস্তান, কাজাখস্তান, কিরগিজস্তান, উজবেকিস্তান নিয়ে গঠিত ‘অরগানাইজেশন অব তুর্কিক স্টেটস’। সংগঠনটির পূর্বনাম ছিল তুর্কিক কাউন্সিল। হাঙ্গেরি, তুর্কমেনিস্তান ও সাইপ্রাস সংগঠনটির পর্যবেক্ষক রাষ্ট্র। এক দেশ অন্য দেশকে সহায়তা করার লক্ষ্য নিয়েই গঠিত হয়েছে সংগঠনটি।