‘১২০ শতাংশ’ দিয়ে আরেকটু ‘সহজ জয়’ আশা করেছিলেন নাজমুল

সংবাদ সম্মেলনে হাসিমুখে এলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক নাজমুল হোসেন। সেটাই স্বাভাবিক। টি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপে মাঠে নামার আগে বাংলাদেশ দল নিয়ে কম কথা হয়নি। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে চলেছে একের পর এক রঙ্গরসিকতা।

যুক্তরাষ্ট্রের কাছে টি–টোয়েন্টি সিরিজ হার, প্রস্তুতি ম্যাচে ভারতের কাছে নিঃশর্ত আত্মসমর্পণ—এমন সব পারফরম্যান্সের পর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশ নিজেদের প্রথম ম্যাচেই জয় তুলে নেবে, এমন আশাবাদীদের সংখ্যা নিশ্চয়ই কমেছিল। কিন্তু ডালাসে আজ শ্রীলঙ্কাকে ২ উইকেটে হারিয়ে টি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপে শুভসূচনা করে সমর্থকদের সেই বিশ্বাসটাই ধীরে ধীরে ফিরিয়ে আনার চেষ্টায় এক ধাপ এগিয়ে গেলেন নাজমুল। অধিনায়কের মুখের হাসিটা তাই মানানসই।

তবে হাসি উবে যাওয়ার দশাও হয়েছিল। শ্রীলঙ্কার ৯ উইকেটে ১২৪ রান তাড়া করতে নেমে বাংলাদেশ একপর্যায়ে হাতে ২ উইকেট রেখে ১২ বলে ১১ রানের সমীকরণে ছিল। সেখান থেকে যেকোনো কিছুই ঘটতে পারত। মাহমুদউল্লাহ থাকায় রক্ষা। নাজমুল অবশ্য শুধু মাহমুদউল্লাহ নয়, দলের সবারই প্রশংসা করলেন। বিশেষ করে মাঠে নেমে ইতিবাচক শরীরী ভাষার ভূয়সী প্রশংসাই করলেন নাজমুল, ‘সবার শরীরী ভাষাই দারুণ ছিল। আমরা নিজেদের ১২০ শতাংশ দিয়েছি।’

শ্রীলঙ্কার ইনিংসে আজ ৫৭টি ডট আদায় করেছেন বাংলাদেশের বোলাররা। উইকেটও নিয়েছেন নিয়মিতভাবেই। আর ফিল্ডাররাও ছিলেন বেশ তৎপর। অতিরিক্ত রান দেননি বললেই চলে। নাজমুল এসব মিলিয়েই সন্তুষ্টি প্রকাশ করলেন, ‘১০–১৫ দিন ধরে আমরা পরিকল্পনা করছি। ফিল্ডাররাও তাদের দায়িত্ব পালন করেছে। তবে আমার মনে হয় তারা দারুণ বোলিং করেছে।’ বাংলাদেশের বোলাররা কতটা ভালো বোলিং করেছেন, সেই প্রমাণ দেবে স্কোরকার্ডই। ৫.১ ওভারে ২ উইকেটে ৪৮ থেকে বাকি ওভারগুলোয় মাত্র ৭৬ রান তুলতে পেরেছে শ্রীলঙ্কা। এই পথে হারিয়েছে ৭ উইকেট।তবে এই রান করতে গিয়েই বিপদে পড়েছিল বাংলাদেশ। ১১.৪ ওভারে দলীয় ৯১ রানে তাওহিদ হৃদয় আউট হওয়ার পর ২২ রানের মধ্যে আরও ৪ উইকেট হারিয়েছিল বাংলাদেশ। মাহমুদউল্লাহ শেষ পর্যন্ত না থাকলে ফলটা অন্য রকমও হতে পারত। নাজমুল তাই আরও ভালো ব্যাটিংয়ের তাগাদা দিলেন এভাবে, ‘এমন উইকেটে আমাদের আরও সহজে জেতা উচিত ছিল।’

চতুর্থ উইকেটে লিটন ও হৃদয়ের ৩৮ বলে ৬৩ রানের জুটি বাংলাদেশের জয়ের ভিত। এই জুটিতে লিটনের অবদান ১৮ বলে ১৮, হৃদয়ের ২০ বলে ৪০। দুজনের প্রশংসা করে নাজমুল বলেছেন, ‘খুব গুরুত্বপূর্ণ ছিল লিটনের জন্য। সে রান পাচ্ছিল না, আজ নিজের দক্ষতা দেখিয়েছে। আমার মতে, সে খুব ভালো ব্যাটিং করেছে। হৃদয় খুব সাহসী ছিল। ওই ওভারে (হাসারাঙ্গার ১২তম ওভারে টানা তিন ছক্কা) সে যেভাবে ব্যাট করেছে, সেটি খুব কাজে লেগেছে আমাদের।’

আগামী সোমবার নিউইয়র্কে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ।

পূর্বের খবরমোদীর শপথ অনুষ্ঠানে যোগ দিতে আজ দিল্লি যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী
পরবর্তি খবরপ্রযোজকের অনৈতিক প্রস্তাব: যেভাবে সামলেছেন এই বলিউড অভিনেত্রী