হামাসের পক্ষের পোস্ট সরিয়ে দিচ্ছে ফেসবুক

ফিলিস্তিনি স্বাধীনতাকামী গোষ্ঠী হামাসের প্রশংসা বা তাদের প্রতি সমর্থন জানিয়ে দেওয়া পোস্টগুলো সরিয়ে দিচ্ছে ফেসবুক-ইনস্টাগ্রাম। শুক্রবার সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলোর মূল কোম্পানি মেটা এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছে।

ইসরাইল-হামাস যুদ্ধ শুরুর পর সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলো ‘ভুল তথ্য’ নিয়ন্ত্রণে যথেষ্ট পদক্ষেপ নিচ্ছে না অভিযোগ তুলে সম্প্রতি প্রযুক্তি কোম্পানিগুলোর কঠোর সমালোচনা করেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। তার পরপরই হামাস সম্পর্কিত পোস্ট সরিয়ে নেওয়ার ঘোষণা দিল ফেসবুকের মূল কোম্পানি মেটা।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে, গত ৭ অক্টোবর হামাস ইসরাইলে আক্রমণ চালানোর পর থেকেই ফেসবুকসহ বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে ‘বিভ্রান্তিকর তথ্য ও পরিবর্তিত ছবি’ ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়েছে।

মেটা জানিয়েছে, সংঘাত শুরুর তিন দিনে তাদের প্ল্যাটফর্মগুলো থেকে ৭ লাখ ৯৫ হাজারে বেশি কন্টেন্ট সরিয়ে নেওয়া হয়েছে অথবা ‘ডিস্টার্বিং’ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। এসব কন্টেন্ট প্রধানত আরবি বা হিব্রু ভাষায় লেখা হয়েছিল।

হামাসের হাতে ইসরাইলিদের জিম্মি হওয়া সংক্রান্ত পোস্টও সরিয়ে দিচ্ছে মেটা। এমনকি, এই জিম্মি পরিস্থিতির নিন্দা বা সচেতনতা বাড়ানোর লক্ষ্যে পোস্ট করা হলেও সেগুলো সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে ফেসবুকের মূল কোম্পানিটি।

ভুক্তভোগীদের অস্পষ্ট (ব্লারড) ছবিসহ পোস্টগুলো এখনো প্ল্যাটফর্মগুলোতে রাখা হয়েছে। তবে অপহৃতদের সুরক্ষা এবং গোপনীয়তাকে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে মেটা।

পূর্বের খবরশুধু পরামর্শক খরচ ১০৬ কোটি টাকা
পরবর্তি খবরট্রাফিক আইনে জরিমানা দিয়েছেন ব্রিটনি স্পিয়ার্স