ষড়যন্ত্রকারীদের বিষ দাঁত ভেঙে দিয়ে এগিয়ে যাবে যুবলীগ: বাহাউদ্দিন নাছিম

যুবলীগের কর্মীসভায় আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেছেন, ষড়যন্ত্রকারীরা ষড়যন্ত্র করবে, তাদের বিষদাঁত ভেঙে দিয়ে পরাস্ত করতে হবে। সেই জন্য আপনাদের সংগঠনকে শক্তিশালী করতে হবে। সংগঠন শক্তিশালী থাকলে কোনও ষড়যন্ত্রই কাজে দেবে না। আজ আপনারা শোনেন, জানেন আমরাও বলি শেখ হাসিনার বিপক্ষেই সব ষড়যন্ত্র।

শনিবার (২৯ জুন) আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষকী উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে দলটির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগ এবং তেজগাঁওয়ে ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগের কর্মীসভার মাধ্যমে প্রাথমিক সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কার্যক্রমের অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, বাংলাদেশের বিপক্ষে যারা ষড়যন্ত্র করে, বাংলাদেশের মানুষের অধিকার আদায়ে লক্ষ্যে, বাংলাদেশের মানুষের স্বপ্নকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার যে সংগ্রাম আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনার, সেই সংগ্রামকে বাধাগ্রস্ত এবং দেশকে আবার অন্ধকারে ডুবিয়ে দেওয়ার ষড়যন্ত্র করছে বিএনপি-জামাত। তাদের সঙ্গে কারা আছে সাম্প্রদায়িক শক্তি, আর কারা আছে চিহ্নিত ৭১’-এর রাজাকার, আলবদর এবং ’৭১-এ যারা বাংলাদেশের মানুষের বিপক্ষে অস্ত্র তুলে আমাদের মা-বোনদের সম্মানহানী করিয়েছে, হত্যা করেছে, আমাদের সন্তানকে হত্যা করেছে, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় সম্পৃক্ত মানুষকে হত্যা করেছে, সেই জামাত-বিএনপি, শিবির, রাজাকাররা, যুদ্ধাপরাধীরা।

তিনি বলেন, আজ সময় এসেছে, প্রতিটি মুহূর্তে আমাদের বিএনপি-জামাতকে মোকাবিলা করেই এগিয়ে যেতে হবে। এই চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় যুবলীগ শেখ হাসিনার একটি বিশ্বস্ত, সাহসী ভ্যানগার্ড সংগঠন। আপনারা লড়াই করে, সংগ্রাম করে আপনাদের ঐতিহ্যবাহী সংগঠন যুবলীগের পতাকাকে তুলে ধরেছেন।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের কর্মীসভায় সভাপতিত্ব করেন এ শাখার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাইন উদ্দিন রানা। ঢাকা মহানগর উত্তরের কর্মীসভায় সভাপতিত্ব করেন এ শাখার সহসভাপতি কাজী জহিরুল ইসলাম মানিক।

উভয় সভায় আরও বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক বি এম মোজাম্মেল হক, যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল প্রমুখ।

পূর্বের খবরনিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন জানিয়ে সায়েদুল হকের জিডি
পরবর্তি খবরবাজারে আসছে নতুন ডিটারজেন্ট ‘রাইমা সুপার’