রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় তিনজনের মরদেহ উদ্ধার

রাজধানীর পল্টন ও রমনা থানা এলাকার পৃথক স্থান থেকে এক নারীসহ তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের মধ্যে দুই জন ভবঘুরে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

মঙ্গলবার সকালে তাদের মরদেহগুলো উদ্ধার করা হয়। আইনি প্রক্রিয়া শেষে ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক মর্গে রাখা হয়েছে।

ডিএমপির পল্টন থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মেহেদী হাসান জানিয়েছেন, সকাল পৌনে ৬টার সময় গুলিস্তান গোলাপশাহ্ মাজারের সামনে থেকে অজ্ঞাত পুরুষ (৬০) এর মরদেহ উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে যান। তার পরনে ছিল লুঙ্গি।

তিনি বলেন, মৃতের পরিচয় পাওয়া যায়নি। ভবঘুরে প্রকৃতির বলে ধারণা করা হচ্ছে। আশপাশের কেউ তাকে চেনেনও না। একই দিন থানা এলাকায় গুলিস্তান বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম তিন নম্বর গেটের সামনে ফুটপাত থেকে অজ্ঞাত এক নারীর মরদেহ উদ্ধার করে পল্টন থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ আলী। তিনি জানান, মহিলার পরিচয় পাওয়া যায়নি, তার বয়স আনুমানিক (৫০) বছর। ভবঘুরে প্রকৃতির, তার পড়নে ছিল গোলাপি রংয়ের ছেলোয়ার কামিজ। এর আগে পথচারীরা ঐ নারী কে অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে থানায় সংবাদ দেন। পরে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মত ঘোষণা করেন।

এছাড়া গতকাল সকাল পৌনে ১০টার দিকে রমনা মডেল থানাধীন মগবাজার বৈশাখী হোটেলের রাস্তার পাশ থেকে এক ব্যক্তিকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে, রমনা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সাইদুল হক ঢামেক হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে  কর্তব্যরত চিকিৎসক পরীক্ষা নিরিক্ষার পর সকাল পোনে ১১ টায় মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের পকেট থেকে পাওয়া এনআইডি কার্ড সূত্রে জানা গেছে তার নাম মো. আব্দুল বারেক (৩৩)। চট্টগ্রাম জেলার রাঙ্গুনিয়া উপজেলার সফর ভাটা গ্রামের মো. শামসুল আলম এর ছেলে। এসআই সাইদুল হক বলেন, ময়নাতদন্তের পর তার মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যাবে।

পূর্বের খবরব্রাসেলসে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী
পরবর্তি খবরসাবেক যোগাযোগমন্ত্রী সৈয়দ আবুল হোসেন আর নেই