ভিনিসিয়ুসের সেই পেনাল্টি না দেওয়ার ভুল স্বীকার করল কনমেবল

দক্ষিণ আমেরিকান ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা কনমেবল জানিয়েছে, কোপা আমেরিকায় গতকাল ব্রাজিল–কলম্বিয়া ম্যাচে ব্রাজিলকে একটি পেনাল্টি না দেওয়ার ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছেন রেফারি ও ভিএআর।

ক্যালিফোর্নিয়ার সান্তা ক্লারার লেভি’স স্টেডিয়ামে ম্যাচের ৪২ মিনিটে নিজেদের বক্সে ব্রাজিলিয়ান উইঙ্গার ভিনিসিয়ুসকে ফেলে দেন কলম্বিয়ান ডিফেন্ডার দানিয়েল মুনোজ। পেনাল্টি দাবি করে ম্যাচের সেই মুহূর্তে ১–০ গোলে এগিয়ে থাকা ব্রাজিল। কিন্তু ভেনেজুয়েলান রেফারি হেসুস ভালেনজুয়েলা ফাউলের বাঁশি বাজাননি। মুনোজ বল স্পর্শ করেছিলেন, এটা ভেবে ভিএআর রেফারি আর্জেন্টিনার মাউরো ভিজলিয়ানো মাঠের রেফারির সিদ্ধান্ত কার্যকর রাখেন।

গতকাল কনমেবলের ভিডিও বার্তায় বলা হয়, ‘পেনাল্টি বক্সে বল দখলের লড়াইয়ে ডিফেন্ডার বল স্পর্শ করেননি। এর ফলে সংঘর্ষ হয়েছে এবং যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, সেটার ক্ষেত্রে এটা যৌক্তিক ছিল না। রেফারি এটি দেখতে ব্যর্থ হয়েছেন এবং খেলা চালিয়ে গেছেন। ভিএআরও এটা দেখতে ব্যর্থ হয়েছে যে ডিফেন্ডার বল স্পর্শ করেননি, তিনি ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকারের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়েছেন। এরপর ভিএআর মাঠের সিদ্ধান্ত বহাল রাখার ভুল রায় দিয়েছে।’

ব্রাজিলের জন্য পেনাল্টি পাওয়াটা গুরুত্বপূর্ণ ছিল। কারণ, কলম্বিয়ার সঙ্গে ম্যাচটি ১–১ গোলে ড্র করায় গ্রুপ রানার্সআপ হয়েছে ব্রাজিল। এর ফলে কোয়ার্টার ফাইনালে খেলতে হবে অপেক্ষাকৃত শক্তিশালী দল উরুগুয়ের বিপক্ষে। ম্যাচটি জিততে পারলে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হিসেবে কোয়ার্টার ফাইনালে তুলনামূলক সহজ প্রতিপক্ষ পানামাকে পেত ব্রাজিল। তাই কলম্বিয়ার বিপক্ষে ম্যাচটি জেতার ক্ষেত্রে ওই পেনাল্টি পাওয়া খুব গুরুত্বপূর্ণ ছিল।

ড্রয়ের পর রেফারির সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেছিলেন ব্রাজিল কোচ দরিভাল জুনিয়র, ‘সেই (ভিনির ফাউল) মুহূর্তে ব্যবধান ২-০ হতে পারত। এরপরই আমরা গোল হজম করেছি। আমার মতে, এটাই পার্থক্য গড়ে দিয়েছে। স্টেডিয়ামে শুধু সে (রেফারি হেসুস ভালেনজুয়েলা) এবং ভিএআরের দলই টের পায়নি যে ওটা পেনাল্টি ছিল। এতে ব্রাজিলের ক্ষতি হয়েছে।’

পূর্বের খবরমুক্তিযোদ্ধা কোটা নিয়ে আপিল শুনানির অপেক্ষা
পরবর্তি খবরছয় জেলায় নষ্ট হয়েছে ২২,২৫০ হেক্টর জমির ফসল