নিউইয়র্কে ছুরি হামলায় দুই শিশুসহ নিহত ৪

যুক্তরাষ্ট্রে নিউইয়র্কে ছুরি হামলায় চারজন নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে দুজন শিশু। এ ছাড়া হামলায় আহত হয়েছেন আরও তিনজন। পরে পুলিশের গুলিতে হামলাকারী নিজেও নিহত হন।

তবে নিজে নিহত হওয়ার আগে ওই হামলাকারী দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে ছুরিকাঘাত করেন। হামলায় নিহতরা সবাই একটি বর্ধিত পরিবারের সদস্য।

রোববারের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নিউইয়র্কের কুইন্সে ছুরিকাঘাতে দুই শিশুসহ চারজন নিহত ও তিনজন আহত হয়েছেন। এই ঘটনায় ফোন করে পুলিশে খবর দেওয়া হলে রোববার ভোররাতে কুইন্সের ফার রকওয়ে এলাকায় আগুন লাগিয়ে দেওয়া একটি বাড়িতে ক্ষতিগ্রস্তদের খুঁজে পায় পুলিশ।

বিবিসি বলছে, অভিযুক্ত ওই হামলাকারী দুই পুলিশ অফিসারকে ছুরিকাঘাত করে। একপর্যায়ে আহত একজন পুলিশ কর্মকর্তা তাকে গুলি করেন। পরে সন্দেহভাজন ওই ব্যক্তিকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলেও সেখানে তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়।

জ্যামাইকা হাসপাতালে একটি প্রেস ব্রিফিংয়ে পুলিশ জানায়, তারা স্থানীয় সময় ভোর ৫টা ১০ মিনিটে ৯১১ নাম্বারে একটি ফোনকল পায়। সেখানে এক তরুণী বলেন, তার চাচাতো ভাই তার পরিবারের সদস্যদের হত্যা করছে।

পরে দুই অফিসারকে ঘটনাস্থলে পাঠানো হলে তারা সেখানে একজন পুরুষকে লাগেজ নিয়ে হাঁটতে দেখেন। অফিসাররা ওই ব্যক্তির সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করলে সে একটি ছুরি বের করে এবং একজন অফিসারকে ঘাড়ে ও বুকে ছুরিকাঘাত করে এবং দ্বিতীয় অফিসারের মাথায় আঘাত করে।
একপর্যায়ে আহত একজন অফিসার তার আগ্নেয়াস্ত্র বের করে সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে গুলি করতে সক্ষম হন।

বিবিসি বলছে, আরও পুলিশ অফিসারকে ঘটনাস্থলে পাঠানোর পর তারা বাড়ির সামনে ১১ বছর বয়সি একটি মেয়েকে দেখতে পান। তাকে সেখান থেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলেও পরে তার মৃত্যু হয়।

এ ছাড়া জরুরি পরিষেবার সংস্থাগুলো বাড়ির ভেতরে আরও তিনজনের মৃতদেহ খুঁজে পায়। নিহত এই তিনজনের মধ্যে একজন ১২ বছর বয়সি ছেলে, একজন ৪৪ বছর বয়সি নারী এবং অন্যজন ৩০ বছরের বেশি বয়সি পুরুষ।

এ ছাড়া আহত ৬১ বছর বয়সি একজন নারীকে একাধিক ছুরিকাঘাতের ক্ষতসহ মাউন্ট সিনাই হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। নিহতদের সবারই ছুরিকাঘাতের ফলে মৃত্যু হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে এবং ঘটনাস্থল থেকে ছুরিও উদ্ধার করা হয়েছে।

পূর্বের খবরগাজীপুরে চলন্ত বাসে আগুন
পরবর্তি খবরহুটহাট কাজ বন্ধ করতে চাই