তিস্তার পানি বিপদসীমার ওপরে

গত তিন দিনের টানা বর্ষণ ও ভারত থেকে আসা উজানের ঢলে তিস্তার পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে উত্তরের এ নদীর পানি। পানির চাপ মোকাবিলায় দোয়ানী তিস্তা ব্যারাজ প্রকল্পের ৪৪টি জলকপাট খুলে রাখা হয়েছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ড জানিয়েছে, আজ সোমবার সকাল ৬টায় তিস্তা ব্যারাজ পয়েন্টে বিপদসীমার ২৮ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে। তবে একই নদীর কাউনিয়া সড়ক সেতু পয়েন্টে বিপদসীমার ৭ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে পানি।

পানি উন্নয়ন বোর্ড লালমনিরহাটের অফিস সহকারী গোলাম ফারুক এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর ফলে লালমনিরহাট সদরের খুনিয়াগাছ, রাজপুর, গোকুন্ডা, মোগলহাট, কুলাঘাটের, বড়বাড়ি, কালিগঞ্জ উপজেলার তুষভান্ডার, কাকিনা ভোটমারী, পাটগ্রামের শ্রীরামপুর, পাটগ্রাম, বুড়িমারী, দহগ্রাম, জগৎবেড়, বাউরা, আদিতমারী উপজেলার মহিষখোঁচা, দুর্গাপুর, হাতিবান্ধার ডাউয়াবাড়ি, সিন্দুর্না, গড্ডিমারী, বড়খাতা, সিংগিমারী, পাটিকাপাড়া ইউনিয়নগুলোতে বন্যার শঙ্কা দেখা দিয়েছে। এসব ইউনিয়নের নিচু এলাকাগুলো ইতোমধ্যে তলিয়ে গেছে।

পূর্বের খবরপ্রধানমন্ত্রী ওয়াশিংটন ডিসি পৌঁছেছেন
পরবর্তি খবরশত শত আর্মেনীয় ছেড়ে পালাচ্ছেন নাগোরনো-কারাবাখ