তারা রমজানেও মিথ্যা কথা বলছে: প্রধানমন্ত্রী

বিএনপি নেতাদের উদ্দেশ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, তারা রমজানের দিনেও উচ্চকণ্ঠে মিথ্যা কথা বলছে।

বুধবার (১২ এপ্রিল) আওয়ামী লীগের সারা দেশের জেলা শাখার নেতাকর্মীরা গণভবনে তার সঙ্গে দেখা করতে গেলে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, তারা প্রতিদিনই এমন কি রমজানের দিনেও উচ্চকণ্ঠে মিথ্যা কথা বলছে। একটু তো রয়ে-সয়ে বলা উচিত। কোনো উন্নতিই নাকি তারা দেখে না চোখে। কেন তারা এমন করছে- আমি তা বুঝতে পারছি না।’

সব ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করে দেশের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে কাজ করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, তার সরকার ২০০৯ সাল থেকে টানা তিন মেয়াদে দেশ ও জনগণের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে। আওয়ামী লীগ সরকারের কঠোর পরিশ্রমের কারণে দারিদ্র্যের হার ২০০৬ সালের ৪১ শতাংশ থেকে ২০২৩ সালে ১৮ দশমিক ৭ শতাংশে নেমে এসেছে এবং অতি-দরিদ্রের হার ২৫ শতাংশ থেকে ৫ দশমিক ৬ শতাংশে নেমে এসেছে।
শেখ হাসিনা বলেন, তার সরকার দ্রুততম সময়ে দারিদ্র্যের হার আরও দুই বা তিন শতাংশ কমিয়ে আনার প্রচেষ্টাকে আরও গতিশীল করবে।
তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে কোনো অতি-দারিদ্রতা থাকবে না।’
 
তিনি আরও বলেন, তার সরকার বিনা খরচে বাড়ি প্রদান, স্বাস্থ্যসেবা পরিষেবা মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে  দেয়া এবং দেশবাসীর অবস্থার পরিবর্তনের জন্য শিক্ষার হার বৃদ্ধিসহ সবকিছুই করছে।

আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, তার দল ক্ষমতায় এলে জনগণের ভাগ্যের পরিবর্তন হয়।
জাতীয় নির্বাচন দরজায় কড়া নাড়ছে উল্লেখ করে তিনি আওয়ামী লীগকে আরও শক্তিশালী করে জনগণের কল্যাণে আরও সম্মিলিতভাবে কাজ করার জন্য দলের নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান।
পূর্বের খবরশেখ হাসিনার নেতৃত্বে গণতান্ত্রিক সরকার ব্যবস্থা সুসংহত: ওবায়দুল কাদের
পরবর্তি খবরকাটছাঁট ১৭৫৫৬ কোটি টাকা