অস্ট্রেলিয়ার ‘মাথাব্যথা’ কমালেন হেড

দুই আসর মিলিয়ে টানা চার ম্যাচে হার। ওয়ানডে বিশ্বকাপে এমন দুঃসময় কখনো আসেনি রেকর্ড পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়ার। এবার ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে প্রথম দুই ম্যাচে ব্যাটিংয়ে ভরাডুবি হয়েছে অসিদের। দারুণ ছন্দে থাকা ওপেনার ট্রাভিস হেডের অনুপস্থিতি ভোগাচ্ছে তাদের। হেডের চোটের কারণে ১৪ জনের দল নিয়ে বিশ্বকাপ শুরু করতে হয়েছে অস্ট্রেলিয়াকে। টুর্নামেন্টের শেষ ভাগে পাওয়ার আশায় স্কোয়াডে রেখে দেওয়া হয়েছিল তাকে।

জোড়া হারের ধাক্কায় টালমাটাল অস্ট্রেলিয়ার ‘মাথাব্যথা’ রোববার একটু কমালেন হেড। প্রত্যাশার চেয়ে অনেক দ্রুত সেরে উঠেছেন তিনি। বাঁ-হাতের ব্যান্ডেজ খুলে ফিরেছেন ব্যাটিং অনুশীলনে। অ্যাডিলেডে আরও করেকদিন অনুশীলন করে আগামী বৃহস্পতিবার বিশ্বকাপ দলে যোগ দিতে ভারতে উড়াল দেবেন হেড।

গত মাসে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজের চতুর্থ ওয়ানডেতে বাঁ-হাতে চোট পান হেড। স্ক্যানে চিড় ধরা পড়ায় তাকে দেশে রেখে বিশ্বকাপ খেলতে ভারতে যায় অস্ট্রেলিয়া। ওয়ানডেতে শেষ ১৬ ইনিংসে ৬০.৮৪ গড় ও ১১৯.৮৪ স্ট্রাইক রেটে ৭৯১ রান করায় হেডকে বিশ্বকাপ স্কোয়াডে রেখে দেওয়ার ঝুঁকি নিয়েছিল আস্ট্রেলিয়া। তার প্রতিদান দিতে মুখিয়ে আছেন ২৯ বছর বয়সি এই বাঁ-হাতি ব্যাটার। আগামী ২৫ অক্টোবর নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে পঞ্চম ম্যাচ দিয়ে শুরু হতে পারে হেডের বিশ্বকাপ। এরপর নিউজিল্যান্ড, ইংল্যান্ড, আফগানিস্তান ও বাংলাদেশের বিপক্ষে খেলবে অস্ট্রেলিয়া।

নেদারল্যান্ডস ম্যাচের আগে আজ শ্রীলংকা ও আগামী শুক্রবার পাকিস্তানের মুখোমুখি হবে তারা। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার ওয়েবসাইটে কাল হেড জানিয়েছেন, ‘ভালোভাবেই সব এগোচ্ছে। সম্ভবত আমাদের আশার চেয়েও ভালো। যখন অস্ত্রোপচার না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম, তখন বলা হয়েছিল ব্যান্ডেজ অন্তত ছয় সপ্তাহ রাখা লাগবে। সে অনুযায়ী নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ম্যাচটি ছয় সপ্তাহের কিছু কম সময়ের মধ্যে হবে। একটু তাড়াহুড়ো হলেও এই ম্যাচ দিয়েই ফেরার চেষ্টা করব।’

পূর্বের খবরট্রাফিক আইনে জরিমানা দিয়েছেন ব্রিটনি স্পিয়ার্স
পরবর্তি খবরজলবায়ু পরিবর্তনের অভিঘাত থেকে দেশকে বাঁচাতে হবে: প্রধানমন্ত্রী